1. bdculture2020@gmail.com : bdculture :
সাইয়্যেদাতুন নেছা আফনান এর ছোট গল্প "তাওবা" - BD CULTURE
শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:৪৪ অপরাহ্ন

সাইয়্যেদাতুন নেছা আফনান এর ছোট গল্প “তাওবা”

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেটের সময় : শনিবার, ১৪ আগস্ট, ২০২১
ছোট গল্প "তাওবা"
-আয়মান ভাই চাচী মারা গেছে।
-কহন?
-ভোর বেলা।
-মাটি দিবে কহন?
-আপনে আসার পর।
-আমি আসমু না।অফিসের কাজ আছে ঢের।
-এডা কি কন?আপনার মা মারা গেছে আর আপনে আইবেন না?
-সিয়াম দেখ আমার কাজের প্রেসার প্রচুর।এই মূহুর্তে আসা সম্ভব না।
আয়মান ফোন কেটে দিয়ে সিগারেট ধরালো একটা।বারান্দায় দাঁড়িয়ে সিগারেটের ধোয়া উড়াচ্ছে আর গুনগুন করছে।হঠাৎ পিছন থেকে কেউ ঝাপটে ধরেছে।আয়মান মুচকি হাসলো।
-জানেমান ঘুম কেমন হয়েছে?
-আমার টাকাটা দিন আমি চলে যাবো।
-আর কিছুক্ষন থাকো!
-না,টাকাটা দিন।
শ্রেয়া হলো আয়মানের রক্ষিতা।যদিও আয়মানের ওয়াইফ আছে সাত বছরের একটা ছেলেও আছে কিন্তু পরনারীর প্রতি আসক্তি যুবক হওয়ার পর থেকেই।বাবার অঢেল টাকা ছিল যেভাবে খুশি সেভাবে উড়িয়েছে।এখন নিজের টাকার অভাব নেই।পরকাল বলতে কিছুই মানে না।রমজান মাস চলছে কিন্তু সেটা সে অন্যসব মাসের মতোই মনে করছে।
-কাল রাতে কোথায় ছিলে?
-এক বন্ধুর বাসায়।
-মা মারা গিয়েছে শুনেছো?
-হ্যা শুনেছি।
-যাবে না?
-না।
-এমন একটা দিন আসবে যেদিন তুমিও মারা যাবে আর আয়ান তোমাকে মাটি দিতে যাবে না কেমন হবে?
-সেদিনেরটা সেদিন বোঝা যাবে।
-আয়মান!আমি বলেছি তুমি যাবে মানে যাবে।
-আর আমি বলেছি যাবো না,তোর ইচ্ছা হলে তুই যা।বুড়ি বেটি মারা গিয়েছে সেখানে যেয়ে কি করবো?
-পাপা!দাদুমনি তোমার মা হয়।
-আয়ান তুমি বড়দের মুখের উপর কথা বলছো?এই শিক্ষা দিয়েছি?
-তোমাকে দাদুমনি কেমন শিক্ষা দিয়েছিলেন?
-আয়ান!
-তোমার ছেলেই তো আমি পাপা।তোমার মতোই তো হবো।অপেক্ষা করো মৃত্যুর,তোমার মৃত্যুর পরে তোমাকে মাটি না দিয়ে জলে ভাসিয়ে দিবো।
আয়মান অবাক নয়নে তাকিয়ে রইলো আয়ানের দিকে কিন্তু আয়ানের আচরণে না তার নিজের আচরণ মনে করে।দৌড়ে বের হয়ে গেল বাসা থেকে কিন্তু দেরী হয়ে গিয়েছিল।ততক্ষনে আয়ামনের মা’কে দাফন দিয়ে ফেলেছে।
-আয়ান,ঈদের শপিংয়ে যাবে না?
-হ্যাঁ আমি আর মা যাবো।
-কেন পাপাকে নিবে না?
– যে রোজা রাখে না তার আবার ঈদ কীসের?
-মানে?
-আল্লাহ তায়া’লা ঈদ দিয়েছেন রোজাদারদের জন্য।বেরোজদারের জন্য ঈদ না।
-আয়ান!
-পাপা তুমি আমাকে ধমক না দিয়ে ভাবো আল্লাহকে কি জবাব দিবে!
আয়মান মাথা চেপে ধরলো।দম বন্ধ লাগছে ঈদানিং।আজ তারাবির নামাজে যাবে বলে ঠিক করলো আয়মান।হঠাৎ অফিসের ফোন আসায় বেড়িয়ে পড়লো বাসা থেকে।মাঝ রাস্তায় অপেক্ষা করছিলো আজরাঈল।সে তার কাজ করে চলে গেল।আয়মানের রূহ বিহীন দেহটা পড়ে রইলো রাস্তার মাঝে।তাওবা এমন একটা নেয়ামত যা সবার কপালে থাকে না।সময় থাকতে তাওবা করে নিন।কে জানে আগামি কাল কেন একটু পরেই থাকবেন কীনা!

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর

Categories

© All rights reserved © 2019 bdculture
                          কারিগরি সহায়তায় রাফিউল ইসলাম