1. bdculture2020@gmail.com : bdculture :
স্বামী মারা গেলে স্ত্রীর করণীয় কি? - BD CULTURE
রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:২১ পূর্বাহ্ন

স্বামী মারা গেলে স্ত্রীর করণীয় কি?

মিশকাত রায়হান
  • আপডেটের সময় : শনিবার, ৩১ জুলাই, ২০২১
স্বামী মারা গেলে স্ত্রীর করণীয়
স্বামীর মৃত্যুর পর স্ত্রীর ইদ্দতকালীন সময় স্ত্রীর করণীয় সম্পর্কে হাদিসে যা এসেছে তা এই-
১- উম্মে হাবীবা রাযি. থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, তিনি বলেন, আমি রাসূলুল্লাহ কে বলতে শুনেছি যে, আল্লাহ এবং পরকালে বিশ্বাসী কোনো নারীর জন্য তার স্বামী ব্যতীত অন্য কারো মৃত্যুতে তিন দিনের বেশি সময় হিদাদ (শোক করা ও সাজসজ্জা থেকে বিরত থাকা) বৈধ নয়। আর স্বামীর মৃত্যুতে ৪ মাস ১০ দিন হিদাদ পালন করবে। (সহীহ বুখারী হাদীস নং- ৫১২৮) ।
২- উম্মে সালামা রাযি. হতে বর্ণিত, তিনি বলেন, নবী কারীম  বলেছেন, যে স্ত্রী লোকের স্বামী মৃত্যুবরণ করে সে যেন ইদ্দতকালীন সময়ে রঙিন এবং কারুকার্যমণ্ডিত কাপড় ও অলংকার পরিধান না করে। আর সে যেন খিযাব ও সুরমা ব্যবহার না করে। ( আবু দাউদ হাদীস নং- ২২৯৮)
আল্লামা কুরতুবী রাহ. তার বিখ্যাত তাফসীরগ্রন্থ ‘আলজামে লিআহকামিল কুরআন’ও ইদ্দত সংক্রান্ত আয়াতের ব্যাখ্যায় লেখেন,
হিদাদ পালনের অর্থ হল, মহিলা তার ইদ্দতকালীন সুগন্ধি, সুরমা, মেহেদি, অলঙ্কারাদিসহ পোশাক-আশাকের ক্ষেত্রে যাবতীয় সাজসজ্জা ত্যাগ করবে। (তাফফীরে কুরতুবী ৩/১৭৯) ।
উক্ত আলোচনা থেকে প্রমাণিত হচ্ছে, বিধবা নারীর ইদ্দতে নিম্মোক্ত বস্তু নিষিদ্ধ , যার আরবি নাম হিদাদ–
(১) সকল প্রকার সুগন্ধি :  বিধবা নারী নিজের শরীরে কিংবা কাপড়ে সুগন্ধি ব্যবহার করবে না, অনুরূপ সুগন্ধি যুক্ত বস্তুও ব্যবহার করবে না।
(২) শারীরিক সাজসজ্জা গ্রহণ করা : বিধবা নারীর সাজসজ্জা গ্রহণ করা, যেমন খিযাব ও অন্যান্য রূপচর্চার বস্তু সুরমা, শরীরের তক রঙ্গিনকারী বিভিন্ন প্রকার রঙ ব্যবহার করা হারাম।
তবে ওষুধ হিসেবে সুরমা ব্যবহার করা বৈধ, যদি প্রয়োজন হয়, সৌন্দর্যের অংশ হিসেবে নয়, সুরমা শুধু রাতে ব্যবহার করবে, দিনে মুছে ফেলবে। সুরমা ব্যতীত অন্যান্য বস্তু দ্বারা চোখের চিকিৎসা করাও বৈধ, যাতে সৌন্দর্য নেই।
(৩) সাজসজ্জার কাপড় পরিধান করা :  বিধবা নারীর জন্য সাজসজ্জার কাপড় পরিধান করা হারাম। সাধারণ কাপড় পড়বে, এ সময় নির্দিষ্ট রঙের কাপড় পরিধান করার কোনো ভিত্তি নেই, সমাজে যার প্রচলন রয়েছে।
(৪) অলঙ্কার : বিধবা নারীর জন্য সকল প্রকার অলঙ্কার পরিধান করা নিষিদ্ধ , এমন কি আঙ্কটি পর্যন্ত।

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর

Categories

© All rights reserved © 2019 bdculture
                          কারিগরি সহায়তায় রাফিউল ইসলাম